মালিবাগে পুলিশের গাড়িতে বিস্ফোরণ ॥ আইএসের দায় স্বীকার

0
82

মোস্তাফিজুল আবেদীন

রাজধানীর মালিবাগ মোড়ে রবিবার পুলিশের গাড়িতে বিস্ফোরণের ঘটনায় দায় স্বীকার করেছে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস। টুইটারে দেওয়া এক পোস্টে এ তথ্য জানিয়েছে জঙ্গি তৎপরতা বিষয়ক খবরের মুনাফাভিত্তিক ওয়েবসাইট সাইট ইন্টেলিজেন্স। এ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো বাংলাদেশে সংঘটিত কোনও হামলায় আইএস-এর দায় স্বীকারের খবর পাওয়া গেলো।

ইতোপূর্বে গুলশানের হলি আর্টিজান হামলা এবং গুলিস্তান মার্কেটে চালানো হামলায় তিন পুলিশ সদস্য আহতের ঘটনায় জঙ্গিদের দায় স্বীকারের খবর দেয় সাইট ইন্টেলিজেন্স।

২৬ মে রবিবারের ঘটনায় রাত ৯টার দিকে মালিবাগ মোড়ে ফ্লাইওভারের নিচে দাঁড়িয়ে থাকা পুলিশের একটি গাড়িতে বিস্ফোরণ ঘটে। এতে ওই গাড়িতে থাকা পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) রাশেদা আক্তার ও রিকশাচালক লাল মিয়াসহ দুই পথচারী আহত হন। আহতদের প্রাথমিকভাবে রাজারবাগ পুলিশ লাইন্স হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

এর আগে গত ২৯শে এপ্রিল ঢাকার গুলিস্তানে ককটেল বিস্ফোরণে তিন পুলিশ সদস্য আহত হওয়ার ঘটনায় দায় স্বীকার করেছিল আইএস। তখন বিষয়টি খতিয়ে দেখবে বলে জানিয়েছিল পুলিশ। এর এক মাসেরও কম সময়ের মাথায় রবিবার রাতে মালিবাগ মোড়ে এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটলো।

দুই বছরেরও বেশি সময় আগে গুলশানের হলি আর্টিজান হামলার দায় স্বীকার করেছিল আইএস। দুনিয়াজুড়ে আলোড়ন তৈরি করা ওই হামলায় ২০ জনকে হত্যা করে জঙ্গিরা। নিহতদের মধ্যে ৯ জন ইতালি, ৭ জন জাপান, ৩ জন বাংলাদেশি এবং ১ জন ভারতীয় নাগরিক। এছাড়া জঙ্গিদের হামলায় দুই পুলিশ সদস্যও নিহত হন।

সেনাবাহিনীর কমান্ডো অভিযানে পাঁচ হামলাকারীও নিহত হয়। পরে ঘটনাস্থল থেকে আরও একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়; যাকে পরে রেস্টুরেন্টের কর্মচারী হিসেবে শনাক্ত করা হয়। হামলাকারীদের মধ্যে অনেকেই বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ছিলো। এরা শিক্ষিত ও মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান। মামলার তদন্তে ঘটনার সঙ্গে মোট ২১ জন জড়িত ছিল বলে জানতে পারে পুলিশ। এর মধ্যে ঘটনার দিন ও পরে ১৩ জনই নিরাপত্তা বাহিনীর বিভিন্ন অভিযানে নিহত হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here